» উপমহাদেশের ওলামায়ে কেরামের রাজনৈতিক দর্শন শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

Published: ১৬. ডিসে. ২০১৭ | শনিবার

শুক্রবার ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন চরমোনাই কওমিয়া সাংগঠনিক জেলা শাখার উদ্যেগে আয়োজিত উপমহাদেশের ওলামায়ে কেরামের রাজনৈতিক দর্শন শীর্ষক সেমিনার- এর আয়োজন করা হয়। সংগঠনের কেন্দ্রীয় শুরা সদস্য ও চরমোনাই কওমিয়া শাখার সভাপতি এইচ্ এম আরিফুর রহমান, এবং শাখার সাধারন সম্পাদক এইচ মুতাছিম বিল্লাহ, ও সহ-সভাপতি রহমাতুল্লাহ এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মুহতারাম আমীর আলহাজ্ব হযরত মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম ( পীর সাহেব চরমোনাই) বিশেষ অতিথি গুরুত্বপূর্ন বক্তাব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর সিনিয়র নায়েবে আমির আলহাজ্ব হযরত মাওলানা মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ মাওলানা মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী। আল্লামা নুরুল হুদা ফয়েজী (প্রেসিডিয়াম সদস্য ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ) মাওলানা গাজী আতাউর রহমান (যুগ্ন মহাসচিব ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ) সহ আরো অনেক কেন্দ্রীয় নেতাবৃন্দ। উক্ত সম্মেলনে প্রধান বক্তার গুরুত্বপূর্ন বক্তাব্য রাখেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর মুহতারাম কেন্দ্রীয় সভাপতি ছাত্রনেতা জ্বি এম রুহুল আমিন। প্রধান অতিথি তার ভাষনে ই,শা ছাত্র আন্দোলনের প্রতিটা সদস্যকে জ্ঞান ও নেতৃত্যে পারদর্শী হতে হবে। বিশেষ করে সমাজের সর্বস্তরে দ্বীনের দাওয়াত পৌছে দিতে হবে। এবং আল্লাহর জমিনে আল্লাহর হুকুমত বাস্তবায়নে দৃড়ভাবে আত্বনিয়োগ করতে হবে।

তিনি তার ভাষনের এক পর্যায় মুসলমানদের পবিত্র শহর জেরুজালেম এর ব্যাপারে ট্রাম্পের অবস্থানের কঠোর নিন্দা জানান। ও মুসলমানদের এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার আহব্বান জানান। এবং বিশেষ অতিথি মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়েজুল করীম তার ভাষনে বলেন এই দেশ মুসলমানদের দেশ। এ দেশ দির্ঘদিন যাবত মুসলমানরা শাষন করে আসছে। কাজেই সজাগ থাকতে হবে এই দেশকে কোন বিধর্মীরা মুসলমানদের থেকে ছিনিয়ে নিতে না পারে। তিনি আরো বলেন যারা জয় বাংলা বলেন ভাবতে হবে এখানে একটা সুদক্ষ লজিক আছে কারন জয় বাংলা মানে বাংলাদেশ ও ভারত অর্থাৎ ভারতের যেখানে বাংলা ভাষা রয়েছে তা এক করা তার মানে হলো যারা বলে জয় বাংলা তারা এই দেশটাকে ভারতের কাছে বিক্রি করে দিতে চায়। অতএব জয় বাংলা না বলে জয় বাংলাদেশ বলুন। এর পর বাদ মাগরীব আন্তর্জাতীক পুরুস্কার প্রাপ্ত ক্বারী আবু রায়হান ও হাফেজ যাকারিয়া এর কুরআন তিলাওয়াতের মধ্য দিয়ে ইসলামী সংগীত অনুষ্ঠান শুরু হয়। ও রাত ১০ টার পরে দোয়া মুনাজাতের মাধ্যমে সমাপ্তি ঘটে। সংকলনে মোঃ মাহাদী হাসান।

Share Button

খোঁজাখুঁজি

জুন ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« এপ্রিল    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০