» কাজ বন্ধ রেখে আন্দোলনে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

Published: ১৮. ফেব্রু. ২০১৮ | রবিবার

বকেয়া বেতনের দাবিতে ফের আন্দোলনে নেমেছে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের (বিসিসি) কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। রোববার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর পর্যন্ত দাফতরিক সব কাজ বন্ধ রেখে নগর ভবনের সামনে অবস্থান নেয় বিসিসির বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এ সময় তারা বকেয়া বেতনের দাবিতে স্লোগান দিতে থাকে। খবর পেয়ে সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলররা নগর ভবনে গিয়ে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা করেন। বিসিসির আন্দোলনরত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জানায়, নগর ভবনে স্থায়ী ও অস্থায়ী মিলিয়ে প্রায় ২ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছে। বিসিসির স্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জানুয়ারি মাসে গত বছরের আগস্ট মাসের বেতন পেয়েছেন। সে হিসাবে এখনই তাদের ৫ মাসের বেতন বকেয়া।

এদিকে, দৈনন্দিন মজুরিভিত্তিক কর্মচারীদের ৪ মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। বেতন বকেয়া পড়ায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানবেতর জীবন যাপন করতে হচ্ছে। বেতনবঞ্চিত কর্মচারীরা জানায়, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন না দেয়া হলেও ঠিকাদারদের লাখ লাখ টাকার বিল পরিশোধ করছে নগর ভবন কর্তৃপক্ষ। তাদের অভিযোগ, কর্মচারীদের বেতন দিলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোনো পার্সেন্টেজ পায় না। কিন্তু ঠিকাদারদের বিল পরিশোধ করলে মোটা অংকের পার্সেন্টেজ মেলে। তাই কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন পরিশোধের চেয়ে ঠিকাদারদের বিল পরিশোধে আগ্রহী নীতি নির্ধারকরা।

সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও সচিব মো. ইসরাইল হোসেন বলেন, গত মাসেও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুই মাসের বকেয়া বেতন দেয়া হয়েছে। তাদের দাবি যৌক্তিক। কর্তৃপক্ষ দ্রুত সময়ের মধ্যে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন পরিশোধের চেষ্টা করছে। এর আগে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বকেয়া বেতনের দাবিতে বিসিসির হিসাব শাখায় তালা ঝুলিয়ে দেয় কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এর আগে গত বছর বকেয়া বেতনের দাবিতে কর্মবিরতি, বিক্ষোভসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে বিসিসির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

Share Button

খোঁজাখুঁজি

নভেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০