» বরিশালে শুরু হতে যাচ্ছে নার্সিং ইনস্টিটিউটের শিক্ষা কার্যক্রম

Published: ১৮. ফেব্রু. ২০১৮ | রবিবার

শামীম আহমেদ :  রাজশাহীর পর এবার বরিশালে চলতি বছরের মার্চের মাঝামাঝি সময়ে ক্লাস শুরু হতে যাচ্ছে ইসলামি ব্যাংক নাসিং ইনস্টিটিউটের শিক্ষা কার্যক্রম। অতিসম্প্রতি ৪০ আসন বিশিষ্ট নার্সিং ইনিস্টিটিউটে তিন বছর মেয়াদী ডিপে¬ামা ইন নার্সিং সায়েন্স অ্যান্ড মিডওয়াইফারী কোর্সের অনুমোদন দিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নাসিং শিক্ষা শাখা। ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের আগামি ২৫ ফেব্রুয়ারীর মধ্যে ভর্তির আবেদনপত্র গ্রহণ ও জমাদান সম্পন্ন করতে হবে। সূত্রমতে, ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশ’র অধীনে ২০০০ সালের প্রথমবারের মতো যাত্রা শুরু করে রাজশাহী ইসলামি ব্যাংক নাসিং ইনস্টিটিউটের শিক্ষা কার্যক্রম। এরপর ২০১৬ সালে ওই প্রতিষ্ঠানটি নার্সিং কলেজে রুপান্তরের অনুমোদন মিলে। এ অবস্থায় দেশের প্রতিটি বিভাগীয় শহরে ইসলামি ব্যাংক একটি করে নার্সিং ইনস্টিটিউট কিংবা নাসিং কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করে। পরবর্তীতে রাজশাহীর পর গত ১৩ ফেব্রুয়ারী বরিশালে নাসিং ইনস্টিটিউটের অনুমোদন মেলে। সূত্রে আরও জানা গেছে, ওইদিন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের নাসিং শিক্ষা শাখা’র উপ-সচিব সাবিনা ইয়াসমিন স্বাক্ষরিত এক আদেশে সাতটি শর্তে বরিশালে প্রাথমিকভাবে ৪০ আসনের নার্সিং ইনস্টিটিউটের তিন বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স অ্যান্ড মিডওয়াইফারী কোর্সের অনুমোদন প্রদান করা হয়। ওই অনুমোদন পাওয়ার সাথে সাথেই এখানকার কর্মকর্তারা ইতোমধ্যে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছেন। এরআগে গত বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে প্রিন্সিপাল, নাসিং ইনস্ট্রাক্টর (ডেমোন্সট্রেটর) ও ক্লিনিক্যাল টিচার পদসহ ১১টি ক্যাটাগরিতে নিয়োগ কার্যক্রম শেষ করা হয়। বরিশাল নগরীর চাঁদমারী ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালের পূর্ব পাশের সাততলা বিশিষ্ট ভবন জুড়েই প্রতিষ্ঠিত নাসিং ইনস্টিটিউট। একই ছাদের নিচে শিক্ষার্থীদের আবাসন ব্যবস্থা ছাড়াও রয়েছে অত্যাধুনিক ক্লাস রুম ও ডিজিটাল ল্যাব এবং ল্যাইব্রেরী। সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, ভর্তির জন্য ১৭ ফেব্রুয়ারী থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারীর মধ্যে ৫০০ টাকার ব্যাংক ড্রাফট কিংবা পে-অর্ডারের মাধ্যমে ভর্তি ফরম সংগ্রহ করতে হবে। একই সময়ের মধ্যে ভর্তি ফরম জমা দিতে হবে। এরপর আবেদনপত্র যাচাই বাছাই শেষে প্রার্থীদের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে। আবেদনপত্র গ্রহণযোগ্যরা লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন। সেখান থেকে উত্তীর্ণ ৪০ জন ভর্তির সুযোগ পাবেন। ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের প্রশাসনিক ইনচার্জ মোঃ আবুল খায়ের বলেন, তিন বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স অ্যান্ড মিডওয়াইফারী কোর্সে ভর্তির জন্য প্রার্থীকে যেকোনো শিক্ষা বোর্ড থেকে ২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিতব্য এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ-২.৫ এবং ২০১৫, ২০১৬ ও ২০১৭ সালে অনুষ্ঠেয় এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় ন্যূনতম, জিপিএ-২.৫ পেয়ে পাস হতে হবে। প্রার্থীকে অবশ্যই বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক ও অবিবাহিত হতে হবে। ৪০টি আসনের মধ্যে ৩২টি আসনে ছাত্রী ও আটটি আসনে ছাত্র ভর্তি হতে পারবেন। ভর্তি প্রক্রিয়া শেষে মার্চের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে ক্লাস শুরু করার জন্য ইতোমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

Share Button

খোঁজাখুঁজি

জুলাই ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১