» বরিশালগামী বাস খাদে ॥ নিহত ৮

Published: ০১. এপ্রি. ২০১৮ | রবিবার

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে যাত্রীবাহী নৈশকোচ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে আটজন নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছে ২৯ জন। আহতদের ফরিদপুর ও ভাঙ্গা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার ভোররাত সাড়ে তিনটার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার বরইতলা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত তিনজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন, বরগুনা সদর উপজেলার আমতলী গ্রামের হাসান মিয়া (২৫) ও বরিশালের অসীম মাঝি (৪০) এবং বরিশালের আগোলঝাড়া উপজেলার বাগদা গ্রামের মাখন বিশ্বাসের ছেলে দিপন বিশ্বাস। তবে বাকিদের নাম পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।

মুকসুদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তফা কামাল পাশা জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা বরিশালগামী সুগন্ধা পরিবহনের একটি নৈশকোচ মুকসুদপুর উপজেলার বরইতলা পৌঁছালে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে ফেলে দেয়। এতে বাসটি দুমড়ে মুচড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই বাসের ছয় যাত্রী নিহত হন এবং কমপক্ষে ৩০ যাত্রী আহত হন। পরে হাসপাতালে আরও দুইজনের মৃত্যু হয়।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ এবং গোপালগঞ্জ, ভাঙ্গা ও মুকসুদপুরের ফায়ার সার্ভিসের চারটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে।

সকাল ৭টার দিকে উদ্ধার কাজ সমাপ্ত করা হয়েছে। দুঘর্টনাকলিত বাসটি থেকে আর কোনো মৃতদেহ পাওয়া যায়নি। তবে বাসের চালক ও হেলপারকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এজাজুল ইসলাম জানান, আমারা ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার কাজ শুরু করি। সেখান থেকে ছয়টি লাশ উদ্ধার করে ভাঙ্গা হাইওয়ে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে তিনজনের পরিচয় পেয়েছি। বাকি লাশের পরিচয় পাওয়া গেলে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Share Button

খোঁজাখুঁজি

এপ্রিল ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« মার্চ    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০