সংবাদ সংক্ষেপ

» বরগুনায় গাছের তেতুল পারাকে নিয়ে দু’গ্রুপে সংঘর্ষ

Published: ১২. মার্চ. ২০১৯ | মঙ্গলবার

অনলাইন ডেস্ক// বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় এক দরিদ্র পরিবারের সদস্যদের হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলার ভয়ে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে অভিযোগ করেছেন। মঙ্গরবার (১২ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পাথরঘাটা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মো. আব্দুল মালেক তার পরিবারের সকলের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে এ অভিযোগ করেন। এর আগে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের ছোটটেংড়া গ্রামে এঘটনা ঘটে।

লিখিত বক্তব্যে মো. আব্দুল খালেক বলেন, গত ফেব্রুয়ারি মাসের ১৬ তারিখ বাবার জমির একটি তেতুল গাছের তেতুল পারতে গেলে অন্যায়ভাবে জাহাঙ্গীর, নুর ইসলাম, আউয়ালসহ প্রায় ৮ জন লোক এসে আমার বাবার সাথে তর্কে জরিয়ে পরে এবং আমার বাবাকে লাথি, কিল, ঘুষি মারে। এসময় বাবা চিৎকার দিলে আমার ভগ্নিপতি নুর মোহাম্মাদ ও আমার ছোট ভাইয়ের স্ত্রী রুমা বেগম আমার বাবাকে তাদের হাত থেকে রক্ষা করতে ছুটে আসলে আমার বাবা রুস্তুম আলীসহ তাদেরকে লোহার রট দিয়ে পিটিয়ে সকলের বাম হাত ভেঙ্গে দেয়। পরে স্থানীয়রা তাৎক্ষনিক তাদেরকে উদ্ধার করে পাথরঘাটা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক আনোয়ার উল্যাহ উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তন করেন।

তিনি আরও জানান, আমরা পাথরঘাটা থানায় মামলা করার জন্য গেলে তারা মামলা না নিয়ে শালিশ বৈঠকের মাধ্যমে মিলে যাওয়ার কথা বলেন। চিকিৎসা শেষে আমরা এখন বাড়িতে অবস্থান করছি। এখন প্রতিপক্ষরা আমাদেরকে হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকি দিয়ে আসছে। আমরা নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি। জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে পাথরঘাটা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা করেছি যাহার নম্বর এমপি-০২-১৯।

পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হানিফ সিকদার বলেন, আমি এরকম একটি ঘটনার কথা আজ শুনেছি। সন্ধ্যায় আমার কাছে লিখিত অভিযোগ দিবে। অভিযোগ হাতে পেলে তদন্ত করে সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যাবস্থা নেয়া হবে।’’

Share Button

খোঁজাখুঁজি

মার্চ ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« ফেব্রুয়ারি    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

দেশবাংলা